সখীপুরে আগুনে পুড়ল কৃষকের ৬ গরু

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সখীপুরে আবদুল খালেক মিয়া নামের এক কৃষকের গোয়ালঘরে আগুন লেগে ৬ গরু মারা গেছে। এতে প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

বুধবার দিবাগত রাত ১টার সময় উপজেলার কাকড়াজান ইউনিয়নের দিঘীরচালা গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক খালেক মিয়া ওই গ্রামের মৃত বাজন আলীর ছেলে।

খালেক মিয়া জানান, রাতে গোয়ালঘরে মশার কয়েল জ্বালিয়ে দিয়েছিলাম। ওই গোয়ালঘরে দুই গাভী, তিনটি বকনা, এবং একটি ষাড় গরুসহ ৬ টি গরু রাখা ছিল। আনুমানিক রাত ১টার দিকে গোয়ালঘরে আগুন লাগে। এসময় স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আগুন নেভানোর চেষ্টা করা হয়। কিন্তু মুহূর্তেই গোয়ালঘরে থাকা ৬ গরু পুড়ে ছাই হয়ে যায়।
স্থানীয় ইউপি সদস্য রুহুল আমীন বলেন, কৃষক খালেকের ৬টি গরু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। সে এখন নিঃস্ব হয়ে গেল। সরকারের পক্ষ থেকে তাকে সহায়তা দাবি জানান তিনি।

সখীপুরে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নিরাপদ মাতৃত্ব পরিকল্পিত পরিবার, স্মার্ট বাংলাদেশ হোক আমাদের অঙ্গীকার” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ পালন উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের আয়োজনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) ফারজানা আলমের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জুলফিকার হায়দার কামাল লেবু প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এসময় প্রেসক্লাবের সভাপতি শাকিল আনোয়ার, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা রুহুল আমিন মুকুল, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জাকিয়া জান্নাত, ডা: রফিকুল ইসলাম মেডিকেল অফিসার (এমসিএইচ-এফপি) প্রমূখ বক্তব্য দেন।আগামী ৯ ডিসেম্বর থেকে ১৪ই ডিসেম্বর পর্যন্ত পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ। সভায় মা ও শিশু স্বাস্থ্যের উন্নয়ন সাধন, অনাকাঙ্ক্ষিত গর্ভধারণ, অনিরাপদ গর্ভপাত রোধ এবং জেন্ডার সমতা ও নারীর ক্ষমতায়ন এর উপরে গুরুত্ব আরোপ করা হয়।

সখীপুরে ঘুষের টাকা ফেরত দিলেন ইউপি সদস্য

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ  সবুজ মিয়া ও সোবহান আলী। দুজনে বন্ধু। থাকেন সিংগাপুরে। সম্প্রতি তারা দুজনেই ছুটিতে দেশে এসেছেন।  গেল শনিবার সকালে দুই বন্ধু মিলে সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে যান। তাদের গতিবিধি রহস্যজনক মনে করে ওই দুইজনকে ধরে পুলিশ থানায় নিয়ে আসে। পরে তাদের সম্পর্কে যাচাই-বাছাইয়ের জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্যকে খবর দেয়। পরে ওই ইউপি সদস্য থানায় এসে তাদের ছাড়াতে পুলিশের কথা বলে মোটা অংকের ঘুষ দাবি করেন। পরে থানা থেকে তাদের ছাড়িয়ে তাদের কাছ থেকে ৪৫ হাজার টাকা ঘুষ নেয়। বিষয়টি এলাকায় জানা জানি হলে মঙ্গলবার দুপুরে ঘুষের সেই টাকা ফেরত দেন ওই ইউপি সদস্য। উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হেলাল উদ্দিন ও স্থানীয় মাসুদ রানার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে। ঘটনায় ভুক্তভোগী সবুজ মিয়া বহুরিয়া পূর্ব পাড়া গ্রামের কিতাব আলীর ছেলে এবং সোবহান আলী একই এলাকার আক্কাস আলীর ছেলে। সবুজ মিয়া জানান, আমাদের নামে কোন মামলা নেই। আমরা প্রবাসে থাকি। কোন রাজনীতিও করিনা। তবুও পুলিশ আমাদের ধরে থানায় নেয়। থানা থেকে ছাড়াতে আমাদের দুইজনের কাছ থেকে হেলাল মেম্বার ও মাসুদ রানা ৫৫ হাজার টাকা ঘুষ নেয়।

ইউপি সদস্য হেলাল উদ্দিন জানান, ঘটনাটি সমাধান হয়েছে। একটি মহল আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করছে। যেহেতু আমার নাম এসেছে এতে কিছুই বলার নেই। তবে আমি এ ঘটনার সাথে জড়িত নই।

সখীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ শাহিনুর রহমান বলেন, সন্দেহ হওয়ায় ওই দুই ব্যক্তিকে ধরে থানায় এনে পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। পরে স্থানীয় ভাবে শুনতে পারি ওই দুই জনের কাছ থেকে পুলিশের কথা বলে ৪৫ হাজার টাকা ঘুষ নেওয়া হয়েছিল। পরে দুই পক্ষকে থানায় এনে ঘুষের সেই ৪৫ হাজার টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে।

সখীপুরে দলিল লেখক সমিতির নির্বাচন, সভাপতি মোস্তফা সম্পাদক মিন্টু

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সখীপুর উপজেলা দলিল লেখক ও ষ্ট্যাম্প ভেন্ডার কল্যাণ সমবায় সমিতি লিমিটেড’র ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১৮ নভেম্বর ) সাব-রেজিস্ট্রারের কার্যালয়ে সকাল ১০টা হতে বিকেল ৩টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে সভাপতি পদে মোস্তফা কামাল আরিফ ( চেয়ার) ৯৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। এর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি জাহাঙ্গীর আলম খান পান ৩৫ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে এমএ লতিফ মিন্টু (আনারস প্রতীক ) ১২২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। এর নিকটতম প্রতিদ্বন্ধি ফজলুর রহমান (মোরগ প্রতীক)পান ৪২ ভোট।

এছাড়াও সহ সভাপতি পদে আশরাফ আলী (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়) সহ সম্পাদক পদে শহিদুল ইসলাম (মাছ) , সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মোশাররফ হোসেন (খেজুর গাছ), কোষাধ্যক্ষ পদে হুমায়ূন কবির লিটন (দেয়াল ঘড়ি), ধর্ম বিষয়ক পদে শফিকুল ইসলাম (টিওবয়েল), ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে আলমগীর হোসাইন (প্রজাপতি) এবং দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক পদে আবু হানিফ (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়) নির্বাচিত হয়েছে।

মোট ১৭২ জন ভোটারের মধ্যে ভোটাধীকার প্রয়োগ করেছেন ১৬৭ জন। বাকী ৪ জন বিদেশে আর ১ জন জন অসুস্থ থাকায় ভোট দিতে পারেনি। নির্বাচন পরিচালনা কমিটির দায়িত্ব পালন করেন, সহকারী সমবায় কর্মকর্তা বাহারুল ইসলাম, পৌরসভার প্যআনএল মেয়র মোঃ বিল্লাল সিকদার , মীর শামছুল আলম,সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম, কাউন্সিলর দোলোয়ার সিকদার।

৭ বছর পর সখীপুরে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের নতুন কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ৭ বছর পর সখীপুরে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের কমিটি করা হয়েছে। আজ রোববার দলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী (বীর উত্তম) এ কমিটি ঘোষণা করেন। এই কমিটিকে ১৫ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে বলা হয়েছে। এ সময় কাদের সিদ্দিকী নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি আজ থেকে ২৫ বছর আগে এই সখীপুর থেকেই গামছার (দলীয় প্রতীক) দল গঠন করেছিলাম। আজ সুন্দর ও নির্ভেজাল একটি কমিটি ঘোষণা করতে পেরে আমি খুব খুশি।

তিনি আরও বলেন, ‘গায়ের জোরে মানুষকে অল্প কিছুদিন আটকে রাখা যায়, কিন্তু সারা জীবন নয়। সারা জীবনের জন্য মানুষের অন্তরে জায়গা করে নিতে হলে, টিকে থাকতে হলে মানুষকে ভালোবাসতে হবে, ভালোবাসতে হবে এবং ভালোবাসতে হবে। ভালোবাসা ছাড়া দ্বিতীয় কোনো পদার্থ নাই যে, মানুষকে জয় করতে পারে।’

কমিটিতে আব্দুস সবুর খানকে সভাপতি ও সখীপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র সানোয়ার হোসেন সজীবকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। বাকিরা হলেন সহসভাপতি সানোয়ার হোসেন মাস্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক পীরজাদা আয়নাল হক, আশীস বর্মণ ও আসলাম শিকদার নোবেল, প্রচার সম্পাদক ধলা মিয়া, শ্রমবিষয়ক সম্পাদক বেলায়েত হোসেন, অর্থ সম্পাদক সেলিম মিয়া।

এর আগে ২০১৬ সালে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আতোয়ার রহমানকে সভাপতি ও মীর জুলফিকার শামীমকে সাধারণ সম্পাদক করে দলের উপজেলা কমিটি গঠন করা হয়। কয়েক বছর আগে সভাপতি আতোয়ার রহমান সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান এবং মীর জুলফিকার শামীমের সরকারি চাকরি হওয়ায় তিনি দলীয় কার্যক্রমে অংশ নেন না। তিন বছর পর ২০১৯ সালে আব্দুস সবুর খানকে আহ্বায়ক করে ১০০ সদস্যবিশিষ্ট সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি দিয়েই চলছিল এত দিন সাংগঠনিক কার্যক্রম।

সখীপুরে শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করতে শ্রেণি কক্ষে ইউএনও

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সখীপুরে পাঠ্য প্রস্তুকের নতুন কারিকুলাম বিষয়ে শিক্ষার্থীর উদ্বুদ্ধ করতে শ্রেণি কক্ষে গেলেন ইউএনও ফারজানা আলম। শনিবার সকালে উপজেলার ইন্দাজানি পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শন করতে গিয়ে তিনি ষষ্ঠ শ্রেণির ‘শিল্প ও সংস্কৃতি’ বিষয়ের বার্ষিক সামষ্টিক মূল্যায়নের ক্লাসে প্রবেশ করেন। তিনি নতুন কারিকুলাম বিষয়ে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বললে তারা আনন্দে উচ্ছসিত হয়। এ সময় শিক্ষার্থীদের শ্রেণি কক্ষে সময় মতো উপস্থিতি এবং আনন্দ চিত্তে পাঠদানে আকৃষ্ট করতে শিক্ষকদেরও পরামর্শ দেন তিনি। এ ছাড়া ইউএনও ফারজানা আলম উপজেলার মহানন্দপুর বিজয় স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়, দিঘীর চালা জে আই দাখিল মাদ্রাসা পরিদর্শন করতে গিয়ে শিক্ষার্থীদের পাঠদানে উদ্বুদ্ধ করেন।
প্রধান শিক্ষক মো. লুৎফর রহমান বলেন, স্কুল পরিদর্শন করতে এসে ইউএনও ম্যাডাম শিক্ষার্থীদের সাথপ যে ভাবে মিশে গেলেন তাতে আমরা সবাই আনন্দিত।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারজানা আলম বলেন, স্কুল পরিদর্শন করতে গিয়ে দেখলাম নতুন কারিকুলামের বিষয়গুলো শিক্ষার্থীরা খুব ভালো ভাবে ও আনন্দচিত্তে গ্রহণ করেছে। তারা বার্ষিক সামষ্টিক মূল্যায়নে অংশগ্রহণ করছে। আমি বিশ্বাস করি আজকের শিশুই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার আগামী দিনের কারিগর।

সখীপুরে ৩০ বছর পূর্তিতে শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সখীপুরে সবুজ বাংলা বালিকা দাখিল মাদ্রাসার ৩০ বছর পূর্তিতে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে এ পুনর্মিলনীর প্রধান অতিথি ছিলেন সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার মো. হাবিবুর রহমান। মো. শাহজাহান মিয়ার সভাপতিত্বে মাদ্রাসার সুপার মওলানা মোহাম্মদ ইব্রাহীম খন্দকার, মওলানা মো. নাছির খন্দকার, মো. হুমায়ুন কবির, মো. নাছির উদ্দিন প্রমুখ বক্তব্য করেন। এ পুনর্মিলনে প্রায় ৫৫০ জন শিক্ষার্থী দিনব্যাপী উৎসবমুখর পরিবেশে বিভিন্ন খেলা দোলায় সময় কাটায়। সবুজ বাংলা বালিকা দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন এ পুনর্মিলনীর সমন্বায়কের দায়িত্ব পালন করে। এছাড়া আবুল কালাম আজাদ, মরিয়ম আক্তার ও নাজমা আক্তার গুরুপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।

গ্রেপ্তার হলে তারেক রহমানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে সুপারিশ করবঃ কাদের সিদ্দিকী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ তারেক রহমানকে গ্রেপ্তার করা হলে বোনের (প্রধানমন্ত্রী) কাছে সুপারিশ করার আশ্বাস দিয়েছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী (বীরউত্তম)। আজ শনিবার বিকেলে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে পাইলট গভর্নমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে আয়োজিত এক জনসভায় তিনি এমন কথা বলেন।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘ইংল্যান্ডে অবস্থান করছেন আমাদের তারেক রহমান। আমি সেদিনও বলেছি-আরে বাবা, তোমার মা বৃদ্ধ, যে কোনো সময় মারা যেতে পারেন। দেশে এসে তাঁকে সেবা করো। তোমাকে যদি গ্রেপ্তার করে, তাহলে বোনকে (প্রধানমন্ত্রী) আমি সুপারিশ করব, তাঁর মাকে সেবা করার জন্য যেতে দেন। সাহস আছে?’

তিনি আরও বলেন, ‘তিনি (তারেক) ইংল্যান্ডে বসে বসে ষড়যন্ত্র করছেন। বাঙালি ষড়যন্ত্র হজম করতে জানে। ইনশাআল্লাহ আমরা এই ষড়যন্ত্রের মোকাবিলা করব।’
বিএনপির উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছুড়ে বীরউত্তম কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘বিএনপিতে কি মুসলমান নেই? ইসরায়েল ফিলিস্তিনের মুসলমান শিশু মারছে, বৃদ্ধ মারছে আর আমেরিকা বলছে-তারা যতক্ষণ পর্যন্ত গাঁজা উড়িয়ে দিতে না পারবে, ততক্ষণ পর্যন্ত ইসরায়েলের পক্ষে থাকবে। সেই পক্ষে বিএনপি?’

তিনি আবারও প্রশ্ন করেন, ‘বিএনপিতে কি দুই-একজনও মুসলমান নেই? আমি তো মনে করি মুসলমান নেই।’
কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘আমরা ৩০০ আসনে নির্বাচন করব। বোনকে (প্রধানমন্ত্রী) বলি-জনগণ যাতে ভোট দিতে পারে, সেই ব্যবস্থা করেন। নির্বাচনে বিএনপি আসলো কি আসলো না, এটা আমাদের দরকার নাই। আমেরিকার ভোট আমাদের দরকার নাই।’

নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘সেদিন দেখলাম নির্বাচন কমিশন চিঠি দিয়েছে, আপনারা দুজনে আমাদের সঙ্গে দেখা করেন।’ এ সময় ধমকের সুরে তিনি বলেন, ‘এই নির্বাচন কমিশনার, রাজনৈতিক দল কি আপনার কাছে চাকর-বাকর? রাজনৈতিক দল হচ্ছে আপনার কাছে মুনিব। দেশে সঠিক রাজনৈতিক দল না থাকলে, আপনার নির্বাচন কমিশন থাকবে না। যখন ইচ্ছা হলো ডেকে পাঠাবেন? তারা কি আপনার বেতনভোগী কর্মচারী? ডাকলে সম্মানের সঙ্গে যোগাযোগ করে ডাকতে হবে।’

সম্মেলনে কাদের সিদ্দিকীর বড় ভাই সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে লতিফ সিদ্দিকী বলেন, ‘বিরোধী দলের যারা আজকে ফুসফুস করছে, তারা কারা, কি তাদের পরিচয়, আমরা কি ভুলে গেছি? আমেরিকা ছাড়া তাদের গন্তব্য নেই। ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরায়েল ইতিমধ্যে প্রায় ১০ হাজার শিশু-নারী হত্যা করেছে, আর বাইডেন বলছে-হামাসকে যতক্ষণ নির্মূল করা না হবে, ততক্ষণ পর্যন্ত যুদ্ধবিরতি হবে না। সেই আমেরিকার প্রতি যাদের আনুগত্য, তারা কারা?’
তিনি আরও বলেন, ‘তাদের বাপ-দাদারাও ওই আমেরিকার প্রতিই অনুগত ছিল। একাত্তরেও তারা আমাদের কাছে পরাজিত হয়েছে, আজও তারা পরাজিত হবে, তাতে কোনো সন্দেহ করি না।’

সম্মেলনে উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সম্মেলন বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক আব্দুস সবুর খানের সভাপতিত্বে সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কায়সার চৌধুরী, বেগম নাসরিন কাদের সিদ্দিকী, দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার খোকা (বীরপ্রতীক), সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম দেলোয়ার, কাদের সিদ্দিকীর সহোদর শামীম আল মনসুর আজাদ সিদ্দিকী, সংগীত শিল্পী নকুল কুমার বিশ্বাস, সখীপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র সানোয়ার হোসেন সজীব, যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক হাবিবুন্নবী সোহেল প্রমুখ বক্তব্য দেন।

নয়া শতাব্দী সখীপুর উপজেলা প্রতিনিধির মায়ের মৃত্যু !

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সখীপুর উপজেলা নয়া শতাব্দী প্রতিনিধির মাতা বাহারজান নেছা ইন্তেকাল করেছেন । ( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)
আজ শুক্রবার (৩ অক্টোবর) ভোর রাত ৪ঃ৩০ মিনিটের সময় বার্ধক্য জনিত কারণে তিনি মৃত্যুবরণ করেন । মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ১১৫ বছর । সকাল ১১ টায় পারিবারিক গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।
তার মৃত্যুতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জুলফিকার হায়দার কামাল লেবু, প্রেসক্লাব সভাপতি শাকিল আনোয়ার, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি সখীপুর উপজেলা শাখার সভাপতি মোঃ শহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম হোসাইন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান বুলবুল, গজারিয়া শান্তি কুঞ্জ একাডেমী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিউর রহমান ভূঁইয়া, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাত লতিফসহ সকল সাংবাদিক শিক্ষক ও আত্মীয়-স্বজন শোক প্রকাশ করেছেন।

তিনি মৃত্যুকালে নয় সন্তান ও অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন । তিনি নয়া শতাব্দী প্রতিনিধি তাইবুর রহমানের মাতা। তার মায়ের জন্য সকলের নিকট মাগফেরাত কামনা করেছেন।

সখীপুর পৌরসভার শহর উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: সখীপুর পৌরসভার শহর উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে পৌরসভা মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু হানিফ আজাদ এতে সভাপতিত্ব করেন। সভায় সখীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাকিল আনোয়ার, সখীপুর আবাসিক মহিলা কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল মোঃ.জাকির হোসাইন, সখীপুর বাজার বণিক বহুমুখী সমবায় সমিতির সভাপতি বিল্লাল হোসেন, প্রমুখ বক্তব্য দেন। এসময় পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম, প্যানেল মেয়র বিল্লাল হোসেন, কাউন্সিলর সাজ্জাত হোসেন, বাছেদ শিকদার, শেফালী আক্তারসহ অন্যান্য কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভাপতির বক্তব্যে মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু হানিফ আজাদ পৌরসভার উন্নয়নের বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরেন। তিনি ভবিষ্যতে আরো ৭০টি রাস্তা নির্মাণ করার পরিকল্পনার কথা জানান। অন্যান্য বক্তারা তাদের বক্তব্যে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিষয়ে আন্তর্জাতিক পুরস্কারের জন্য সখীপুর পৌরসভা মনোনীত হওয়ায় সখীপুর সভার মেয়রকে অভিনন্দন জানান।